ই-এন্ট্রি ভিসা চালু করবে কুয়েত

0
620
ই-এন্ট্রি ভিসা কুয়েত

কুয়েত সরকার ইতোমধ্যে ভ্রমণ বিধিনিষেধ শিথিল করতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। এর অংশ হিসেবে দেশটিতে সব ধরণের এন্ট্রি ভিসা পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে নিরাপত্তা সংস্থার বরাত দিয়ে এক সংবাদ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর হতে আরো কিছু সময় লাগবে।

সব ধরনের ভিসা পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত আগামী মাসে কার্যকর হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম আল রাই  এর তথ্য অনুযায়ী, ‘সিদ্ধান্ত কার্যকর করার জন্য এখনও বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছে কর্তৃপক্ষ।’

সূত্রটি জানিয়েছে, ‘সিদ্ধান্ত কার্যকর করার আগে লক্ষ্যমাত্রা ও পদ্ধতি নির্ধারণ করার জন্য জনশক্তি বিভাগের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের বৈঠক করা প্রয়োজন।’

কোভিড-১৯ সংকটের সময় কুয়েতে ডিজিটাল পরিষেবার উপর নির্ভরশীলতা বেড়েছে।

সূত্রটি আরো জানায়, ‘এই অনলাইন নির্ভর কার্যক্রম চলমান থাকায় এবং আরো বিস্তৃত হওয়ার কারণে কুয়েত সরকার অনলাইন ভিসা প্রদান করার চিন্তা করছে, বিশেষ করে প্রবাসীদের জন্য। খুব শীঘ্রই অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নিরাপত্তা বৈঠকে বিষয়টি নির্ধারণ করা হবে।’

আরো পড়ুন
ইতালির ভিসা কত প্রকার ও কী কী
এটা খুবই ভাল ভিসা, একেবারে লাখের বাড়ি মারবে

সূত্রটি জানায়, কুয়েত আগামী মাসের প্রথম দিকে এন্ট্রি ভিসা দেওয়া আবার শুরু করতে পারে।

বৈশ্বিক মহামারীর কারণে আরোপিত বিধিনিষেধ এবং অর্থনৈতিক অবনতির ফলে দেশ থেকে অনেক বিদেশি শ্রমিক চলে যাওয়ায় কিছু পেশায় শ্রমিকের ঘাটতি রয়েছে বলে মনে করছে কুয়েত।

সাত মাসের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে, গত ১ আগস্ট থেকে প্রবাসীদের প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে কুয়েত সরকার। তবে সেক্ষেত্রে অনুমোদিত ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ পাওয়ার পর দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি পাওয়া যাবে। কুয়েত সরকার অনুমোদিত ভ্যাকসিনের মধ্যে রয়েছে- ফাইজার-বায়োএনটেক, অক্সফোর্ড, মর্ডানা ও জনসন অ্যান্ড জনসন।

তবে, যেসব যাত্রীরা সিনোফার্ম, সিনোভ্যাক এবং স্পুটনিক ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ গ্রহণ করেছেন, তারা শুধুমাত্র কুয়েত দ্বারা স্বীকৃত যে কোনো একটি  ভ্যাকসিনের তৃতীয় ডোজ গ্রহণ করলেই দেশে প্রবেশ করতে পারবেন।

সূত্র: গালফ নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here